1. munnait2020@gmail.com : newsdesk :
পুরানো ভাড়া চাওয়ায় রিক্সা চালককে পিটিয়ে আহত করলো দফাদার - জাগো দর্পণ
বৃহস্পতিবার, ০৬ অক্টোবর ২০২২, ০১:২৫ পূর্বাহ্ন
সংবাদ সংক্ষেপঃ
নেছারাবাদের কুড়িয়ানা বাজারে অগ্নিকান্ডে ২১টি দোকান পুড়ে ভস্মীভূত : কোটি টাকার ক্ষতি ৭ দফা দাবী নিয়ে রাস্তায় মানববন্ধনে পিরাজপুরের সরকারী কর্মচারীরা  পিরোজপুরের আশ্রয়নবাসী শিশুদের নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিনে কেক কাটলেন যুবলীগ নেতা পিরোজপুরে নানা আয়োজনে প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিন পালন করলো জেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগ ঢাবি বিজয় ৭১ হল ছাত্রলীগের যুগ্ম সম্পাদক হলেন পিরোজপুরের তাওহীদুল সরকারিভাবে সহযোগিতা পেয়ে ভালো থাকবে ইন্দুরকানীর ক্ষতিগ্রস্থ ১০ জেলে পরিবার পিরোজপুরে ওয়ার্ল্ড ভিশনের ধন্যবাদ জ্ঞাপন অনুষ্ঠান পিরোজপুরে বঙ্গবন্ধু প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রথম উপাচার্য জেলার কৃতি সন্তান ড. কাজী সাইফুদ্দিন কাউখালীতে জমি নিয়ে বিরোধে প্রতিবেশীর হামলায় গুরুতর আহত বৃদ্ধ প্রচুর বৃষ্টি উপেক্ষা করে পিরোজপুর পৌরসভার ৩নং ওয়ার্ডে টিসিবির পন্য বিক্রি শুরু

পুরানো ভাড়া চাওয়ায় রিক্সা চালককে পিটিয়ে আহত করলো দফাদার

জেলা প্রতিনিধি, পিরোজপুর
  • প্রকাশের সময় বৃহস্পতিবার, ৪ আগস্ট, ২০২২
  • ৫৩ জন দেখেছেন

পিরোজপুরের ইন্দুরকানী উপজেলায় পুরানো ভাড়া চাওয়াকে কেন্দ্র করে রিক্সা চালককে পিটিয়ে আহত করার অভিযোগ উঠেছে স্থানীয় দফাদার বেলয়েত হাওলাদারের বিরুদ্ধে। আহত আকাব্বর হোসেন (৬৫) উপজেলার পত্তাশী ইউনিয়নের গাবগাছিয়া গ্রামের মৃত মোজাম্মেল হোসেনের পুত্র।

বুধবার (০৩ আগষ্ট) রাতে আকাব্বরকে দফাদার বেলয়েত হাওলাদারের বাড়ির উত্তর দিকের রাস্তায় থেকে পিটিয়ে আহত অবস্থায় ফেলে রাখা হয়। পরে তাকে উদ্ধারের বিষয়টি আজ (০৪ আগষ্ট) বৃহষ্পতিবার দুপুরে জানিয়েছেন পত্তাশী ইউনিয়ন পরিষদ সদস্য কবির শিকদার।

অভিযুক্তরা হলেন, এলাকার স্থানীয় ইসমাইল চৌকিদারের সেজো পুত্র দফাদার বেলয়েত হাওলাদার, শাহজাহান গাজীর পুত্র মিজান গাজী, ইসমাইল চৌকিদারের আরেক পুত্র তাইজুল হাওলাদার।

স্থানীয় ও আহতের পরিবার সূত্রে জানা যায়, আহত আকাব্বর হোসেন স্থানীয় বিভিন্ন স্থানে রিক্সা চালিয়ে জীবিকা নির্বাহ করতেন। এছাড়াও তিনি রাতে কোচ নিয়ে মাছ শিকারে বের হতেন। বুধবার রাতে রিক্সা চালিয়ে ফিরে মাছ শিকার থেকে ফেরার পথে দফাদার বেলয়েত হাওলাদার, তার ভাই তাইজুল হাওলাদার ও মিজান গাজীকে নিয়ে দেশীয় অস্ত্র দিয়ে মারধর করে গুরুতর আহত করে। পরে আহত অবস্থায় তাকে ফেলে রেখে স্থানীয় ইউপি সদস্যকে জানালে সে তাকে উদ্ধার করে জেলা হাসপাতালে নিয়ে আসে।

চিকিৎসাধীন অবস্থায় আহত আকাব্বর হোসেনের সাথে কথা বললে তিনি জানান, দফাদার বেলয়েতের কাছে আমি পুরানো রিক্সা ভাড়া পাই। ভাড়া চাইছিলাম তাই সে এইভাবে আমাকে পিটিয়ে ফেলে রেখে যাবে? গতকাল রাত ১০:৩০ দিকে দফাদার বেলয়েত হাওলাদারের বাড়ির উত্তর দিকের রাস্তায় ফেলে আমারে কি মাইর না দিলো দফাদার। সাথে ছিলো আরো ২জন। তারা লোহার রড, দফাদারের লাঠি, চেইনসহ দেশীয় অস্ত্র দিয়ে আমার সব ভেঙেচুড়ে দিছে। আমারে মেরে তারপর আবার আমার ২টা চর্ট লাইট কেড়ে নিয়ে ভেঙে ফেলছে। আমি এর বিচার চাই।

আহতের বড় ভাইয়ের পুত্র মো: আউয়াল অভিযোগ করে বলেন, আমার চাচাকে কেনো এভাবে মারা হলো সে জবাব দফাদারকে দিতে হবে। তার সাথে যারা ছিলো তারা কেনো মারধর করলো? এর বিচার দ্রুত সময়ের মধ্যে করতে হবে।

পত্তাশী ইউনিয়নের ইউপি সদস্য কবির শিকদার জানান, আমাদের এলাকায় আগে বিভিন্ন বাড়িতে চুরি হতো। তাই দফাদারকে বলা হয়েছে পাহারা দেয়ার জন্য। গত রাতে দফাদারের এক লোক আহত আকাব্বরকে রাস্তায় দেখতে পেয়ে ডাক দেয়। পরে তাকে মারধর করা হয়েছে বলে শুনেছি। ঘটনার পরে আমার কাছে রাতে ফোন আসে। পরে আমি সেখানে গিয়ে তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে আসি। ঘটনার বিষয়ে স্থানীয় চেয়ারম্যানকে জানানো হয়েছে।

অভিযুক্ত দফাদার বেলয়েত হাওলাদার জানান, এলাকার চুরি ঠেকাতে মেম্বারের নির্দেশে রাতে পাহারা দেয়া হয়। এর আগেও আকাব্বর হোসেনকে কয়েকবার রাতে ঘুরতে নিষেধ করা হয়েছে। তিনি বিষয়টি শোনেননি। তাকে চোর সন্দেহে মারধর করা হয়েছে। পরে ইউপি সদস্য কবির শিকদারকে ফোন দিয়ে বিষয়টি জানালে তিনি আকব্বরকে হাসপাতালে নিয়ে যান। রিকশা ভাড়া নিয়ে কোন বিষয় নাই, এই তথ্যটি সঠিক না।

এ বিষয়ে পত্তাশী ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান শাহিন হাওলাদার জানান, এলাকার চুরি রোধ করতে ইউপি সদস্যকে বলেছিলাম থানার সাথে কথা বলে পাহারা বসাতে। এখন পর্যন্ত থানা কোন পাহারার অনুমোদন দেয়নি। তবে রাতে এলাকাবাসী একজনকে অন্ধকারে দেখতে পেয়ে মারধর করে। পরে দফাদার গিয়ে পরিস্থিতি শান্ত করতে তাকে একটু মারধর করেছে। ভুক্তভোগী আমার কাছে আসেনি। ইউপি সদস্যের মাধ্যমে বিষয়টি আমাকে জানিয়েছে। আমি খোঁজ নিচ্ছি। আশা করি বিষয়টির দ্রুত সমাধান করতে পারব।

ইন্দুরকানী থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) এনামুল হক জানান, ঘটনার পরে আহত ব্যাক্তি থানায় এসে বিষয়টি জানিয়েছে। লিখিত অভিযোগ পেলে এ বিষয়ে তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যাবস্থা গ্রহন করা হয়েছে।

শেয়ার করুন

একই ধরনের আরও খবর
© All rights reserved © 2021 JagoDarpan
Theme Customized BY JAGODARPAN