1. munnait2020@gmail.com : newsdesk :
দুদকের পৃথক ২ মামলায় পিরোজপুরের মেয়র দম্পত্তি আদালতে - জাগো দর্পণ
শুক্রবার, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৭:৪৬ অপরাহ্ন
সংবাদ সংক্ষেপঃ
মঠবাড়িয়ায় মাদক মামলায় মা ও মেয়ের সশ্রম কারাদন্ড নাজিরপুরে ভিমরুলের কামড়ে বৃদ্ধার মৃত্যু ইন্দুরকানীতে গলায় ফাঁস লাগানো ভাসমান অজ্ঞাত যুবতীর মরদেহ উদ্ধার কাউখালীতে ২শ পিচ ইয়াবাসহ গ্রেফতার-২ পিরোজপুরে করোনায় ক্ষতিগ্রস্থ ৩ শত পরিবারকে প্রধানমন্ত্রীর মানবিক সহায়তা বিতরণ ১৭ হাজার কোটি টাকা আত্মসাৎ করার মামলায় রাগীব আহসান ও তার ৩ ভাই ৭ দিনের রিমান্ডে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ সম্পাদকের জন্মদিন উপলক্ষে পিরোজপুর জেলা ছাত্রলীগের বিশেষ দোয়া ও প্রার্থনা এহসান গ্রুপের অভিনব প্রতারণা সুদমুক্ত বিনিয়োগের ধারণা দিয়ে ১৭ হাজার কোটি টাকা আত্মসাৎ ১৭ হাজার কোটি টাকা আত্মসাৎ // সহযোগীসহ এহসান গ্রুপের চেয়ারম্যান রাগীব আটক পিরোজপুরে গ্রাহককে ডেকে নিয়ে মারধরের ঘটনায় এহসান গ্রুপ পরিচালকের দুই ভাই গ্রেফতার

দুদকের পৃথক ২ মামলায় পিরোজপুরের মেয়র দম্পত্তি আদালতে

জেলা প্রতিনিধি, পিরোজপুর
  • প্রকাশের সময় রবিবার, ২৯ আগস্ট, ২০২১
  • ২৩ জন দেখেছেন

পিরোজপুর মেয়র দম্পত্তির বিরুদ্ধে দায়ের হওয়া দুদকের পৃথক ২ মামলার নতুন তারিখ ধার্য করেছেন জেলা দায়রা জজ।

রবিবার (২৯ আগস্ট) পিরোজপুর জেলা দায়রা জজ মো. মুহিদুজ্জামানের আদালত আগামী মাসের সেপ্টেম্বরের ৬ তারিখ শুনানির দিন ধার্য করেন। এর আগে গত  ২৮  মার্চ ওই দুই মামলায় মেয়র দম্পত্তি উচ্চ আদালত থেকে জামিন  নেন।

এ ব্যাপারে মেয়র মো. হাবিবুর রহমান মালেক বলেন, যারা আজকে ক্ষমতায় তারা আওয়ামীলীগের দুরসময় কোথায় ছিল। ৭৫এর ১৫ আগষ্ট আমি পিরোজপুরে প্রথম প্রতিবাদ করেছি। পিরোজপুরে জয়বাংলা শ্লোগান আমি প্রথম দিয়েছি। এখন যারা আওয়ামীলীগের নাম ভাঙ্গিয়ে লুটপাট করে তাদের বংশে কেউ কোন দিন আওয়ামীলীগ করেনি সব হাইব্রিট আওয়ামীলীগ। পিরোজপুরের আওয়ামীলীগ প্রায় ধ্বংশের পথে। তিনি এ ব্যাপারে প্রধানমন্ত্রীর দৃষ্টি কামনা করে বলেন, তাকে ও  পরিবারের ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন করতে উদ্দেশ্যমূলক ভাবে হেয় প্রতিপন্ন করতে এ মিথ্যা মামলায় জড়ানো হয়েছে।

জানা গেছে, পিরোজপুর  জেলা আ’লীগ সহসভাপতি পৌর মেয়র হাবিবুর রহমান মালেক ও তার স্ত্রী নিলা রহমান সহ ২৮ জনের বিরুদ্ধে গত ১৮ মার্চ পৃথক ২টি মামলা দায়ের করেন দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। এর একটিতে পৌরমেয়র ও তার স্ত্রী আর অন্যটিতে মেয়র সহ পৌর সভার ২৭ কর্মকর্তা কর্মচারীদের অভিযুক্ত করা হয়েছে। দুদকের সমন্বিত কার্যালয় বরিশালে এ মামলা দায়ের হয়েছে। দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) উপ-পরিচালক আলী আকবর বাদী হয়ে মামলা দু’টি দায়ের করেন। এর একটি মেয়র মালেক ও তার স্ত্রী নিলা রহমানকে অভিযুক্ত করে জ্ঞাত আয় বর্হিভুত ৩৬ কোটি ৩৪ লাখ ৭ হাজার ৯৩২টাকার সম্পদ  আর অন্যটিতে মেয়র মালেক ও পিরোজপুর পৌর সভার কাউন্সিলর আব্দুস সালাম বাতেন সহ পৌরসভার মোট ২৭ জনের বিরুদ্ধে পৌরসভার একটি নিয়োগে অবৈধভাবে টাকা হাতিয়ে নেয়ার অভিযোগে মামলাটি দায়ের হয়।

দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) উপপরিচালক আলী আকবর জানান, এর আগে গত ২৭ ডিসেম্বর কমিশন  তার সম্পদের বিবরনী চেয়ে তাকে, স্ত্রী মিসেস নিলা রহমান, কন্যা নওরীন আক্তার ও পুত্র ফয়সাল রহমানের নাম উল্লেখ করে তাদের জ্ঞাত সম্পদের হিসাব ও তথ্য বিবরনী  চেয়ে একটি নোটিশ প্রদান করেন। এ ছাড়া একই সাথে পৌরসভার ২৫ জন কর্মচারী নিয়োগে প্রতিজনের কাছ থেকে ৫ লাখ টাকা করে ঘুষ গ্রহন, বাস ও মিনিবাস থেকে অবৈধ চাঁদা আদায়, এলাকায় সিন্ডিকেটের মাধ্যমে ঠিকাদারী করার অভিযোগ করে এ নোটিশ প্রদান করা হয়। ওই নোটিশের যথাযথ উত্তর না পাওয়ায় পরে কমিশন তাকে  (উপপরিচালক আলী আকবর ) এ বিষয়ে অনুসন্ধানের জন্য দায়িত্ব দেন। দীর্ঘ অনুসন্ধান শেষে পৃথক দু’টি মমালা দায়ের করেন।

পৌর সভার ২৫ কর্মচারী নিয়োগে ঘুষ বানিজ্যের অভিযোগে দায়ের হওয়া মামলায় পৌর মেয়র সহ  অভিযুক্ত অন্যান্যরা  হলেন- স্থাণীয় সরকার মন্ত্রনালয়ের উপপরিচালক (সাবেক) তরফদার সোহেল রহমান, পৌরসভার কাউন্সিলর জেলা বিএনপি’র সহসভাপতি আব্দুস সালাম বাতেন, পৌরসভার নির্বাহী প্রকৌশলী আবু হানিফ, পৌরসভার সচীব (অন্যত্র বদলী) মাসুদ আলম, ক্যাশিয়ার (প্রমোশন হিসাবরক্ষক) মো. মাইনুল ইসলাম, সহকারী কর আদায়কারী ( প্রমোশন স্টোর কিপার) মো. মাহাবুবুর রহমান , নিম্মমান সহকারী  শারাফাতুন মান্নান, সহকারী কর নির্ধারক মো. ওয়াদুদ খান, সহকারী কর নির্ধারক মো. মিজানুর রহমান, টিকাদানকারী মো. ফরহাদ হোসেন মল্লিক, সহকারী করআদায়কারী মেহেদি হাসান চপল, সহকারী কর আদায়কারী রশিদা বেগম,  বাজার আদায়কারী মো. রাজু আহমেদ,  বাতি পরিদর্শক রবিউল আলম, অফিস সহকারী মাকসুদা খানম,  ফটোকপি অপারেটর  আনোয়ার হোসেন, টিকাদনকারী  মো. জামিউল হক, টিকাদানকারী  লাইজু আক্তার, টিকাদানকারী  রেক্সোনা মজুমদার, টিকাদানকারী জান্নাতুল ফেরদৌসী, নৈশপ্রহরী ফজলুল হক, নৈশপ্রহরী  নজরুল ইসলাম, পিওন  খাদিজা বেগম, পিওন  দীপক কুমার পাল, সহকারী কর আদায়কারী মিজানুর রহমান মিন্টু, প্রহরী  রনজিত এ ২৭ জন।

শেয়ার করুন

একই ধরনের আরও খবর
© All rights reserved © 2021 JagoDarpan
Theme Customized BY JAGODARPAN